অঙ্ক ঝালাই

চিরকালই আমার অঙ্ক নিয়ে খুব গোলমাল। একদম ছোটবেলায় বেশ ১০০ তে ১০০ পেতাম। তারপরে কিছুদিন গেল ৪০ এর বেশি পাইনা। তারপরে আমার বাবার ছাত্র, আশুমামার তত্বাবধানে ৮০-৯০। তার পরে আবার ২০-৩০…এই করে করে মোটামুটি সুযোগ পাওয়া মাত্র অঙ্ককে ত্যাগ দিয়েছি। সত্যি বলতে গেলে, আমাকে এখনো যদি একটা বড় যোগ বা গুণ দেওয়া হয়, ৫০% সম্ভাবনা আছে যে আমি সেটা ভুল করব।
যাইহোক, ইদানীং আমার কাছে পড়শোনা করতে আসে আমার বাড়ির কাজের মহিলাটির মেয়ে।ক্লাস ফাইভে পড়ে। তাকে অঙ্কও করাতে হয়। তা সেই সব অঙ্ক করাতে গেলে আগে তো নিজে বুঝতে হবে। অতএব, আমি এখন আবার লসাগু এবং ভগ্নাংশ ঝালাচ্ছি।

এই প্রসঙ্গে আরেকটা কথা বলি – ওকে ইংরেজি পড়াতে গিয়ে টের পাচ্ছি, ইংরেজির মত গোলমেলে ভাষা আর হয়না। গোলমেলে, এবং কোন নিয়মকানুনের মাথামুন্ডু নেই। বিশেষতঃ উচ্চারণের ক্ষেত্রে, এবং বেশ কিছু শব্দ প্রয়োগের ক্ষেত্রে।

দুঃখের বিষয়, এত কিছুর পরেও, আমার “শিক্ষিত” বাঙালি বাবা-মায়ের দল বলেন – বাংলা কি কঠিণ, ইংরেজি তো কত সোজা।