আড্ডা গেল কই

মহা সমস্যাতেই পড়েছি। আড্ডা দেওয়ার মত বিষয় কিছুই খুঁজে পাচ্ছি না। দেশের বাইরে থাকলে এই একটা সমস্যা। ঝগড়াঝাঁটি নেই, কথা কাটাকাটি নেই, তর্ক বিতর্ক নেই, জমাটি খাওয়া নেই – দেশের খবরও সেরকমভাবে পাই না যে সে নিয়ে কিছু বলব। কদিন আগে একটি ভিডিও দেখেছিলাম এই প্রসঙ্গে – যদি সত্যিই সরকার বদলে যায় তাহলে কত শিল্পী (কার্টুনিস্ট ইত্যাদি), লেখক, সমালোচক আর লেখার উপাদান খুঁজে পাবেন না। আমারও মনে হচ্ছে একই অবস্থা। কফিহাউজের আড্ডায় এই যে অনেক দিন কিছু লিখিনি তা হল বিষয়ের অভাব।

এই প্রসঙ্গে বলি একটা খবর সম্প্রতি আমার নজরে এল। ফেসবুকে নাকি নানা ধরনের রদবদল হচ্ছে – (যার কিছুটা তো চোখেই দেখছি) ফলে যে হারে লাইক পাওয়া যেত আগে, এখন নাকি তা কমতে থাকবে। যারা ফেসবুককে টাকাপয়সা দেবেন, তারাই সেভাবে তাদের ভক্তদের কাছে পৌঁছতে পারবেন। আমার মনে হয় এই মতলব ওদের বরাবরই ছিল – যারা এতদিন বোঝেন নি তারা ভুল করেছেন, ফেসবুকের সঙ্গে নেশার মত জড়িয়ে পড়ে। কিন্তু ফেসবুক থেকে জনগন বীতশ্রদ্ধ হলে বাংলা ব্লগের বাজার কি সরগরম হবে? কি জানি বাবা।

আরও একটা কথা মাথায় এল – আজকাল কি আমাদের বাংলা ভাষার ধারক ও বাহক – আনন্দ গ্রুপ কিঞ্চিৎ কনফিডেন্সের অভাবে হীনমন্যতায় ভুগছে? নোটিফিকেশন দেখে মনে হচ্ছে রসাল খবর ছাড়া আর কোন রসদ নেই আজকাল। বড় বড় বাবুদের যদি লেখার বিষয় না থাকে, তবে আমি যদি কিছু খুঁজে না পাই লেখার বিষয় হিসেবে, তাহলে আর দোষ কোথায়। আমি তো নিতান্তই আদা ব্যাপারি।